Loading, Please wait...

খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক

4.7/5

খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক আমাদের কর্মশক্তি হ্রাস, রোগ প্রতিরোধক্ষমতা হ্রাস, দৃষ্টিশক্তি ক্ষীণ, পেশির সমস্যা, হৃদ্‌রোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বৃদ্ধি, হিমোগ্লোবিনের অসামঞ্জস্যতা, হজমে সমস্যা, ডায়াবেটিস, হাড় ক্ষয়, ত্বকের নানা সমস্যা হওয়ার প্রবণতা দেখা দেয়। আর এসব সমস্যারই সমাধানে একটি দামি অস্ত্র হতে পারে খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক

মূল্য :
১৬০০ টাঃ
১ কেজি

খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক কারা খাবে ? কত টুকু খাবে ?

১। (১-৩) বছরের বাচ্চারা খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক খেতে পারবে (১-২) চামচ।দুধের সাথে মিসিয়ে খেতে পারেন।

২। (৪-১২) বছরের ছেলে মেয়েরা খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক খেতে পারবে ২ চামচ।

৩। বড়দের জন্য খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক খেতে পারবে ৩ চামচ ।

খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক

খেজুর


👉🏿 কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে ঃ খেজুরে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে, যা কোষ্ঠকাঠিন্য ও বদহজমের সমস্যা দূর করে।
👉🏿মস্তিষ্ক সচল রাখে ঃ খেজুরের সব চেয়ে বড় গুণ হলো এই ফলটি মস্তিষ্ককে প্রাণবন্ত রাখে। আমাদের ক্লান্ত শরীরে যথেষ্ট পরিমাণ শক্তির জোগান দিতে সক্ষম এই পুষ্টিগুণে ভরপুর সুস্বাদু ফলটি।
👉🏿ওজন নিয়ন্ত্রণ ঃ ওজন কমানোর জন্য খেজুর খুবই কার্যকরী। খেজুরে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকায় এটি ক্ষুধা কমায় এবং অতিরিক্ত খাওয়া এড়ায়। আমরা যখন নিয়ন্ত্রণে খাই তখন ওজনও নিয়ন্ত্রণে থাকে।
👉🏿গর্ভবতী নারীদের জন্য উপকারী
👉🏿হিমোগ্লোবিন বাড়ায়
👉🏿ত্বককে টানটান করে
👉🏿হার্টের সমস্যা দূর করে
👉🏿খুসখুসে কাশি দূর করে

জাফরান


👉🏽 জাফরানে রয়েছে পটাশিয়াম যা উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদপিণ্ডের সমস্যাজনিত রোগ দূর করে।
👉🏽হজমে সমস্যা এবং হজম সংক্রান্ত যেকোনো ধরনের সমস্যা দূর করতে সহায়তা করে জাফরান।
👉🏽 জাফরানের পটাশিয়াম আমাদের দেহে নতুন কোষ গঠন এবং ক্ষতিগ্রস্ত কোষ সারিয়ে তুলতে সহায়তা করে।
👉🏽এর নানা উপাদান আমাদের মস্তিষ্ককে রিলাক্স (Relax) করতে সহায়তা করে, এতে করে মানসিক চাপ ও বিষন্নতা জনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।
👉🏽জাফরানের ক্রোসিন (Crocin) নামক উপাদানটি অতিরিক্ত জ্বর কমাতে সহায়তা করে।

বাদাম


👉🏼 বাদামে উপস্থিত বেশ কিছু কার্যকরী উপাদান শরীরে অন্দরে ভাল কোলেস্টরলের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই খারাপ কোলেস্টরলের মাত্রা কমতে শুরু করে।
👉🏼 বাদামে উপস্থিত ফসফরাস শরীরে প্রবেশ করার পর এমন কিছু কাজ করে যার প্রভাবে হাড়ের ক্ষমতা বৃদ্ধি পেতে শুরু করে। তাই প্রতিদিন বাদাম খাওয়া শুরু করলে হাড়ের রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কম থাকবে।
👉🏼 হজম প্রক্রিয়া মজবুত করে
👉🏼 বাদামে এমন কিছু উপাদান রয়েছে, যা মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।
👉🏼 রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়
👉🏼 ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে।বাদামে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এই মৌল। তাই ম্যাগনেসিয়ামের পরিমাণ সঠিক থাকলে ইনসুলিনের সঠিক কার্যকলাপ বজায় থাকে।

প্রতিদিন ৩ চামচ খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক= ১০ গুন এনার্জি

দুর্বল পুরুষ ও নব দম্পতি দের জন্য সুপার বুস্টার

মুল উপকার সমুহ !

👉 পরিপাকে সহায়তা করে

তিরিশের কোঠায় হজমশক্তি আমাদের কমতে শুরু করে। তাই এ সময় খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক খাওয়ার অভ্যাসে আপনার হজমশক্তি বাড়বে। কারণ, অন্ত্রের কৃমি ও ক্ষতিকারক পরজীবী প্রতিরোধে খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেকবেশ সহায়ক। খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক আছে এমন সব পুষ্টিগুণ, যা খাদ্য পরিপাকে সাহায্য করে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে।

👉হার্ট সুস্থ রাখতে সাহায্য করে

আমাদের শরীরে হার্টকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক। কারণ খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক আমাদের শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কম করে এবং ভালো কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। ফলে আমাদের হার্টের সমস্যা প্রতিরোধ করতে সাহায্য হয়। তাই খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক হার্টের জন্য উপকারী উপাদান।

👉পুরুষের যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি করে

খেজুর জাফরান বাদাম মিল্কশেক পুরুষের যৌন ক্ষমতা উন্নত করতে সাহায্য করে। প্রতিদিন নিয়ম মতো সঠিক পরিমাণে খেজুর খাওয়ার ফলে পুরুষের শুক্রাণু গুণমান বৃদ্ধি হবে। খেজুর এস্ট্রাডিওল এবং ফ্ল্যাভোনয়েড দ্বারা লোড করা হয়, যা শুক্রাণুর সংখ্যা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

সুস্থ জীবন

দীর্ঘ জীবন

আনন্দপূর্ণ জীবন

মূল্য ছাড় এ ১৬০০ টাঃ ১ কেজি মাত্র

প্রয়োজনে কল দিতে পারেন +880 1712-655165 অথবা +880 1749-590096 (Whats App Available)নাম্বার এ।

×
×

Cart